Header Ads

sylhettoday news top advertise

পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে ৩ প্রবাসীর উপর ছাত্রলীগের হামলা

পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে ৩ প্রবাসীর উপর ছাত্রলীগের হামলাসিলেট নগরীর জিন্দাবাজার - জল্লারপাড় এলাকার পাঁচভাই রেস্টুরেন্টের সামনে ছাত্রলীগ ক্যাডারদের হামলায় আহত হয়েছেন তিন লন্ডন প্রবাসীসহ ৪ জন। এ সময় তাদের ব্যবহৃত একটি বিলাশ বহুল প্রাইভেট কার ভাঙচুর করা হয়েছে। আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলায় আহতরা হলেন- বালুচর এলাকার সফিক উদ্দিনের ছেলে হাসান (২২), একই এলাকার বশির উদ্দিনের ছেলে লিমন (২৫) ও গয়াস মিয়ার ছেলে নাহিয়ান (১৮)। এরা তিনজনই যুক্তরাজ্য প্রবাসী। এ ঘটনায় তাদের গাড়ি চালকও আহত হন। এছাড়া তাদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কারও ভাংচুর করেছে হামলাকারীরা।

পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে ৩ প্রবাসীর উপর ছাত্রলীগের হামলাপ্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে পাঁচভাই রেস্টুরেন্ট খেতে আসেন তিন প্রবাসী। রেস্টুরেন্ট থেকে রাতের খাবার খেয়ে বের হয়ে গাড়িতে উঠার সময় বাইরে থাকা কয়েকজন ছাত্রলীগ ক্যাডার তাদেরকে নিয়ে খারাপ মন্তব্য করে। তখন ঐ প্রবাসী যুবক এর প্রতিবাদ করলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাদের উপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ ক্যাডারা। এসময় প্রবাসীদের ব্যবহৃত গাড়িটিও ভাংচুর করে তারা। এসময় অনেকে বলেছেন রেস্টুরেন্টের সিসি টিভির ফুটেজ দেখলে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে। হামলাকারী ছাত্রলীগ ক্যাডাররা সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি পিযুষ কান্তি দে’র গ্রুপের কর্মী। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি।


সিলেট কতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মিয়া বলেন, মঙ্গলবারে রাতের খাবার খেতে তিন প্রবাসী পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্টে আসেন। যাওয়ার সময় তাদের একজনকে নিয়ে পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্টের গেটে দাঁড়ানো কয়েকজন তরুণ ব্যঙ্গ করেন। এতে ওই প্রবাসী বাঁধা দিলে তরুণরা দলবল নিয়ে এসে তাদের উপর হামলা চালায়। হামলারকারীরা পিযুষ কান্তি দে'র অনুসারি। পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করেছে। আহতদের ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে ৩ প্রবাসীর উপর ছাত্রলীগের হামলা, প্রাইভেট কার ভাঙচুরএ ব্যাপারে সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি পিযুষ কান্তি দে বলেন, আমার জুনিয়র দুইটা ছেলে রাতে পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়েছিলো। এসময় তিনজন যুবক মদ খেয়ে ওই রেস্টুরেন্টে এসে তাদের মারধর করে। আমাদের কয়েকজন কর্মীর উপর তারা গাড়িও তোলে দেয়। এনিয়ে দুইপক্ষের কিছুটা ঝামেলা হয়েছে। মারধরে রাশেদ ও আসাদ নামে দুই ছাত্রলীগ নেতা আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ