Header Ads

sylhettoday news top advertise

বাহুবলে ইভটিজিং বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন

হবিগঞ্জের বাহুবলের মিরপুরে ইভটিজিং বন্ধ ও রাস্তাঘাটে নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে বিশাল মানবন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বাহুবল কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন ও মিরপুর এলাকাবাসীর উদ্যোগে রবিবার সকাল ১০টায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে স্থানীয় আলিফ-সোবহান চৌধুরী সরকারী কলেজ, মিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এণ্ড কলেজ, মিরপুর এফ.এন উচ্চ বিদ্যালয়, ভুলকোট আদর্শ বিদ্যানিকেতন, মিরপুর দাখিল মাদরাসা, মিরপুর হোসাইনিয়া মাদরাসা, দি হোপ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, সানশাইন প্রি-ক্যাডেট এণ্ড হাই স্কুল, খাইরুন্নেছা-লতিফ প্রি-ক্যাডেট এণ্ড হাই স্কুল, মিরপুর পাইলট স্কুল এণ্ড কলেজ, দি সানরাইজ কেজি এণ্ড ডিজিটাল স্কুল, ব্লু-বার্ড কেজি স্কুল, কুতুবুল আউলিয়া ইসলামী একাডেমি, বাহুবল পূজা উৎযাপন পরিষদ, আমরা সবুজ মিরপুর শাখা, বাহুবল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি ও মিরপুর বন্ধন সিএনজি অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক সমিতির নেতৃবৃন্দ, ছাত্রছাত্রী, ব্যবসায়ী ও পেশাজীবী ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি মো. আসকার আলীর সভাপতিত্বে ও কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক সাইফুর রহমান জুয়েলের পরিচালনায় মানববন্ধন চলাকালে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, ‘অত্র মিরপুর এলাকায় একাধিক হাই স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেনে সহস্রাধিক ছাত্র-ছাত্রী অধ্যয়ন করছে। প্রতিষ্ঠানসমূহের আশপাশের হাট-বাজার ও রাস্তার মোড়ে প্রতিনিয়ত বখাটের দ্বারা ওইসব প্রতিষ্ঠানের ছাত্রী ও পেশাজীবী নারীরা ইভটিজিং এর শিকার হচ্ছে। অনতিবিলম্বে পেশাজীবী নারী ও ছাত্রীদের যাতায়াত পথে নিরাপত্তা নিশ্চিতের উদ্যোগ নিতে হবে। অন্যথায় নারী শিক্ষা ও নারীর পেশাগত ক্ষেত্রে বিরূপ প্রভাব পড়বে।’

মানববন্ধন শেষে আয়োজক কর্তৃপক্ষ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপিতে চারটি দাবি উত্তাপন করা হয়। দাবিগুলো হলো- অভিযুক্ত অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি নিশ্চিত করা, ইভটিজিং বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ, ছাত্রী ও নারীদের চলাচলের রাস্তায় নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ ও এলাকায় পুলিশ প্রহরা বৃদ্ধি করা।

উল্লেখ্য, গত ১লা আগস্ট মিরপুর-বাহুবল রোডে বাজরের প্রবেশমুখে এক বখাটে স্থানীয় সানশাইন প্রি-ক্যাডেট এণ্ড হাই স্কুলের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নিপীড়ন করে। এ ঘটনায় ছাত্রীর মায়ের মামলায় প্রধান আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও তার সহযোগিরা গা ঢাকা দেয়। এ ঘটনায় স্থানীয় অভিভাবকদের মাঝে ছাত্রী ও নারীর যাতায়াত পথের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা সৃষ্টি হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ