Header Ads

sylhettoday news top advertise

জগন্নাথপুরে নিষেধাজ্ঞা মানছে না ইজিবাইক চালকরা

জগন্নাথপুর পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্রে অবৈধ যান ইজিবাইক (টমটম গাড়ি) প্রবেশ না করতে গতকাল রোববার বিকেলে স্থানীয় প্রশাসন নিষেধাজ্ঞা জারি করলেও নির্দেশনা মানছেন না ইজিবাইক চালকরা।

আজ সোমবারও পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্রে অবাধে ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা বা ইজিবাইক (টমটম) চলাচল করতে দেখা গেছে।

স্থানীয় সুত্র জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুমের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে গত গতকাল বিকেলে জগন্নাথপুর পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্রের প্রধান সড়ক পাগলা-জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-আউশকান্দি আঞ্চলিক (আব্দুস সামাদ আজাদ) মহাসড়কের জগন্নাথপুর পৌরশহর থেকে অবৈধ ইজিবাইক গাড়ি অপসারণ করা হয়। এসময় ইউএনও মাহফুজুল আলম মাসুম চালকদের নির্দেশ দেন শহরের প্রাণকেন্দে ইজিবাইক চালানো যাবেনা।

শহরের প্রবেশদ্বার খাদ্য গুদামের পাশের নলজুর নদীর সেতুর পূর্বপাড়া, হবিবনগর এলাকা, ইকড়ছই-চিলাউড়া সড়কের ইকড়ছই মাদ্রাসা পয়েন্টের মোড় থেকে পৌরএলাকাসহ ইউনিয়ন পর্যায়ে ইজিবাইক চলানো যাবে। শুধু মূল শহরের ভেতরে চলাচল বন্ধ থাকবে। অভিযান পরিচালনা শেষে ইউএনও চলে যাওয়ার পর পরই চালকরা নির্দেশনা অমান্য করে ইজিবাইক নিয়ে শহরজুড়ে চলাফেরা করতে দেখা যায়। আজও দিনভর শহরের সর্বত্রজুড়ে ইজিবাইক চলাচল করতে দেখা গেছে।

শহরের স্থানীয় বাসিন্দা শিক্ষক সাইফুল ইসলাম রিপন বলেন, র্দীঘদিন ধরে শহরের প্রধান সড়কজুড়ে এলোমেলোভাবে পড়ে থাকে অবৈধ যানবাহনগুলো। যে কারণে যানজট লেগেই থাকে। সড়কে পায়ে হাঁটা দায় হয়ে উঠে পথচারিদের। ফলে সীমাহীন ভোগান্তির শিকার হয়ে আসছি আমরা। তিনি বলেন, স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষ আন্তরিকভাবে এক সঙ্গে কাজ করলে এসব যানবাহন শহর থেকে অপসারণ করা সম্ভব।

জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ সোহেল আহমদ বলেন, শহরে নাগরিক দুর্ভোগ লাঘবে আমরা কাজ করছি।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুম সিলেটটুডে ডটকমকে বলেন, শহরের ভেতরে ইজিবাইক (টমটম) চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। শহরের নাগরিকদের সুবিদার্থে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ