Header Ads

sylhettoday news top advertise

হবিগঞ্জ ও রাজনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

হবিগঞ্জ : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জ সড়কে পৃথক দুর্ঘটনায় এক নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন।  বৃহস্পতিবার দুপুর ও বুধবার রাতে দুটি পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এই তিনজন নিহত হন। নিহতরা হলেন, বাহুবল উপজেলার ইজ্জপুর গ্রামের মৃত আরফান আলীর স্ত্রী তারা বানু, মাধবপুর উপজেলার কাশিনগর গ্রামের রজব আলীর ছেলে শাকিন (২৭) ও একই গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের ছেলে জুনাইদ মিয়া (৩০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাহুবল থেকে ছেড়ে আসা একটি সিএনজি মহাসড়কের মিরপুরে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি সিএনজি অটোরিকশার সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ৫ জন আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তারা বানুকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মাধবপুর উপজেলার কাউছার নগর এলাকায় একটি মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় একটি ট্রাক। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান শাকিন। এছাড়াও আহত হন দুই আরোহী জুনাইদ মিয়া ও সুমন মিয়া নামের দুই যাত্রী। তাদের উদ্ধার করে সিলেটের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুনাইদ মিয়া মারা যান। এছাড়া সুমনের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী তিনজন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাজনগর : মৌলভীবাজারের রাজনগরে দু’টি পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- তুতি মিয়া (৭০) নামের এক বৃদ্ধ ও উপজেলার সৈয়দনগর গ্রামের সেলিম মিয়া সেলুন (৫২)। বুধবার সকাল ও সন্ধ্যায় সড়ক দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। নিহতদের পরিবারের লোকজন অনুমতি নিয়ে লাশ দু’টি ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন করে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় সেলিম মিয়া সেলুন (৫২) মৌলভীবাজার শহর থেকে মোটর সাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে মনসুরনগর ইউনিয়নের চাটুরা এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটর সাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে যান। এসময় গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

একই দিনে উপজেলার বিসাইর দোকান এলাকায় সকাল সাড়ে ১১টার দিকে তুতি মিয়া (৭০) নামে এক বৃদ্ধকে রাস্তা পারাপারের সময় একটি মোটরসাইকেল ধাক্কা দেয়। এতে গুরুতর আহত হয়ে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। সেখান থেকে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে ও পরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজনগর থানার ওসি আবুল হাসিম বলেন, দুর্ঘটনার ব্যাপারে কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। নিহতদের স্বজনদের আবেদনের প্রেক্ষিতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে মৃতদেহ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ