Header Ads

sylhettoday news top advertise

জগন্নাথপুরে সাইদুল হত্যা: আদালতে কাজলের স্বীকারোক্তি

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে কিশোর গাড়িচালক সাইদুল ইসলাম (১৭) হত্যা ঘটনায় নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন কাজল দেবনাথ। গ্রেফতারের পর সুনামগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হলে তিনি হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা আদালতে স্বীকার করেন। শুক্রবার সাইদুল ইসলামের ভাই রিয়াজুল হক বাদী হয়ে কাজল দেবনাথসহ ৪ জনকে আসামী করে জগন্নাথপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের বাউড়কাপন গ্রামের মৃত সফিক মিয়ার ছেলে ইজিবাইক (টমটম) চালক সাইদুল ইসলাম (১৭) গত ১১ আগস্ট জগন্নাথপুর-বিশ^নাথ-সিলেট সড়কের বাগিচা বাজার থেকে নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় জগন্নাথপুর থানায় জিডি হয়। জিডির সূত্র ধরে সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর সার্কেল) মো. মাহমুদুল হাসান চৌধুরীর নেতৃত্বে অনুসন্ধান শুরু হয়। মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের বুধবার মধ্য রাতে রশিদপুর-কুতুবপুর এলাকা থেকে সাইদুল ইসলামের গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় কাজল দেবনাথ (২৫) নামের এক একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। কাজল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাছির নগর থানার পূর্বভাগ গ্রামের গোপাল দেবনাথের ছেলে। তিনি আন্ত জেলা গাড়ি চোর চক্রের সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে। কাজল দীর্ঘদিন ধরে গাড়ি ছিনতাই করে আসছিল।

এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার মো. মাহমুদুল হাসান চৌধুরী জানান, মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে দীর্ঘ অনুসন্ধান করে ঘটনার রহস্য উদঘাটন ও ঘটনার মূল নায়ক কাজল দেবনাথকে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, আজ শুক্রবার কাজল দেবনাথ বিজ্ঞ আদালতে সাইদুল হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ