31.4 C
Sylhet Division
Monday, September 21, 2020

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান আর নেই

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান আর নেই

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, মৌলভীবাজার ৩ আসনের সাবেক এম.পি, সাবেক হুইপ, বাংলাদেশ সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা সদ্য স্বাধীনতা পদকে ভূষিত, বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ আজিজুর রহমান আর নেই। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহির রাজিউন।

সোমবার (১৭ আগস্ট) আনুমানিক রাত আড়াইটার দিকে তিনি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। ঢাকা থেকে স্বজনরা ভোরেই তাঁর মরদেহ নিয়ে মৌলভীবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় মৌলভীবাজার শহরের পৌর ঈদগাহ ময়দানে তাঁর জানাজা নামায অনুষ্টিত হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর ভাতিজা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সজিব হাসান।

বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭১এসএইচ হেলিকপ্টারের মাধ্যমে আজিজুর রহমানকে মৌলভীবাজার থেকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হচ্ছে।

কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৫ আগস্ট রাত ১২টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আজিজুর রহমানকে জরুরী ভিত্তিতে মৌলভীবাজার হতে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এমআই-১৭১এসএইচ হেলিকপ্টার (এয়ার অ্যাম্বুলেন্স) যোগে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

এর আগে, গত ৩ আগস্ট মৌলভীবাজার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরণ করে। গত ৫ আগস্ট রাতে রিপোর্ট আসে তিনি কোভিড-১৯ পজেটিভ।

মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ এবং রেডক্রিসেন্টের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন।

বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে তিনি ছিলেন একাধিকবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য, সাবেক হুইপ। তিনি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, ১৪ দলের জেলা সমন্বয়কসহ গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন আজিজুর রহমান। তিনি গণপরিষদ সদস্য এবং বাংলাদেশের সংবিধান প্রণেতাদের অন্যতম সদস্য ছিলেন। তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামে অসামান্য অবদানের জন্য এ বছর তিনি স্বাধীনতা পদকে ভূষিত হয়েছেন। তিনি ছিলেন সরাসরি বঙ্গবন্ধু প্রভাবিত রাজনীতিবিদ, এ অঞ্চলের অহিংস ও সৌহার্দ্যপূর্ণ রাজনৈতিক ও সামাজিক বটবৃক্ষ।

চিত্রটি ১৯৭১ সালের। অস্ত্র হাতে দাড়িয়ে থাকা ছবির মানুষটি বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান।

উল্লেখ্য, আলহাজ্ব আজিজুর রহমান ১৯৪৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর মাসে মৌলভীবাজার জেলার গুজারাই গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা মরহুম আব্দুল সত্তার, মাতা মরহুম কাঞ্চন বিবি। তিনি শ্রীনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাজীবন শুরু করেন। মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় হতে মাধ্যমিক ও মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা গ্রহণ করেন। উচ্চ শিক্ষার জন্য ঢাকা কলেজে ভর্তি হলেও শারীরিক অসুস্থতার কারণে হবিগঞ্জের বিখ্যাত বৃন্দাবন কলেজ হতে বিকম ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ছাত্রজীবন থেকেই সক্রিয় রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সরাসরি নির্দেশনায় ১৯৭০ সালের ঐতিহাসিক সাধারণ নির্বাচনে প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধের শুরুতেই ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ কারাবরণ করেন তিনি। এরপর একই বছরের ৭ এপ্রিল মুক্তিবাহিনী কর্তৃক জেল ভেঙ্গে সিলেট কারাগার থেকে তাকে মুক্ত করা হয়। ২ মে পুনরায় পাকবাহিনী মৌলভীবাজার শহরে প্রবেশ করে বর্বরোচিত দমন পীড়ন চালানোর পর ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধ সংগঠনে আত্মনিয়োগ করেন। এক পর্যায়ে মুজিবনগর সরকারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি কর্তৃক আহুত পশ্চিমবঙ্গের বাগডুগায় (দার্জিলিং) প্রথম পার্লামেন্ট অধিবেশনে যোগদান করেন। প্রবাসী সরকারকর্তৃক আয়োজিত সামরিক প্রশিক্ষণে সিলেট বিভাগের একমাত্র প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য হিসেবে সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন এবং ৪ নম্বর সেক্টরের রাজনৈতিক কো-অর্ডিনেটর ও কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে সক্রিয় মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন।

মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এবং গণপরিষদ সদস্য হিসেবে ১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর শমসেরনগর, ৬ ডিসেম্বর রাজনগর এবং ৮ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার মহকুমা প্রশাসকের কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে মৌলভীবাজারকে হানাদার মুক্ত ঘোষণা করেন তিনি।

গণপরিষদের এই সদস্য স্বাধীন বাংলাদেশের জন্য রচিত সংবিধানের একজন স্বাক্ষরকারী। তিনি ১৯৮৬ ও ১৯৯১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৯১ সালে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সে সময় সংবিধানের একাদশ ও দ্বাদশ সংশোধনীতে তিনি বিশেষ অবদান রাখেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মৌলভীবাজার জেলা শাখার দুই বারের সাধারণ সম্পাদক ও দুই বার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও পরবর্তীতে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি মৌলভীবাজার জেলায় ১৪ দল ও মহাজোটের সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন।

অকৃতদার এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মৌলভীবাজার মহিলা কলেজ (বর্তমানে সরকারী) ও সৈয়দ শাহ মোস্তফা কলেজের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি হিসেবে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখেন। তিনি মৌলভীবাজার জেলার অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠক। সামাজিক কল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠান রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি, মৌলভীবাজার শাখার চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

২০১১ সালের ২০ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার বিভাগের প্রজ্ঞাপনমূলে মৌলভীবাজারে প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন আজিজুর রহমান। পরবর্তীতে ২০১৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে দায়িত্বরত ছিলেন।

জাতীয় পর্যায়ে গৌরবোজ্জ্বল ও কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২০ সালে তিনি স্বাধীনতা পদকে ভূষিত হন।

সর্বশেষ সংবাদ

নগরীতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় শ্রমিকের মৃত্যু

সিলেট নগরীতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নাজমুল ইসলাম (৩৫) নামের এক শ্রমিক মৃত্যু হয়েছে। নগরীর সওদাগরটুলাস্থ হারুন পার্টিকেল স্টোরের...

নগরীতে পুলিশের স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

সিলেট নগরীর মজুমদারীস্থ এরশাদ কুটির ৮ নম্বর বাসা থেকে সানন্দা মল্লিক নামের ৩০ বছরের এক গৃহবধূর ঝুলন্ত...

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান আর নেই

মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক যুগ্ন সাধারন সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, মৌলভীবাজার...

বিশ্বনাথে নিখোঁজের ৩ দিন পর নদী থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

সিলেটের বিশ্বনাথে নিখোঁজের ৩ দিন পর নদী থেকে অর্ধগলিত অবস্থায় এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের...

এ বিভাগের আরো খবর

শ্রীমঙ্গলে কোভিডে একজনের মৃত্যু

মৌলভীজারের শ্রীমঙ্গলে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে রফিকুর রশীদ চৌধুরী (৬৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার দিবাগত রাত ২টার...

বড়লেখায় সাপের ছোঁবলে যুবকের মৃত্যু

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ঘুমন্ত অবস্থায় বিষাক্ত সাপের ছোঁবলে মো. সাইফুর রহমান (২৭) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার...

কুলাউড়ায় কোভিডে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের মৃত্যু

সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত আছাব উদ্দিন খাঁন নামে অবসরপ্রাপ্ত এক শিক্ষকের মৃত্যু...

জুড়ীতে করোনায় ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু

সিলেট নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত এক ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার...